যেভাবে আপনার এ্যান্ড্রয়েড ফোনে ব্যাকগ্রাউন্ডে ইউটিউব চালাবেন ?

সাধারণত বিনোদনের জন্য মানুষ টিভি চ্যানেল  উপভোগ করতো । কিন্তু যখন থেকে  অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস মানুষ এর হাতে আসে তখন থেকে ইউটিউব কে মানুষ বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে বেচে নেয়। আর এই ইউটিউব এর  প্রচলন এতোই বর্তমানে একে ভিডিও এর ষ্টোরহাউস বলা হয়।  এই  ষ্টোরহাউস কে এক প্রকার টিভি সেট হিসেবে মানুষ উপভোগ করছে।

কিন্ত এই ইউটিউবকে  আমরা উপভোগ করতে পারি শুধুমাত্র  মিউজিক ভিডিও  হিসেবে।   আর ততক্ষণ  উপভোগ করতে পারি যতক্ষণ  আমাদের  অ্যাকটিভিটি ইউটিউবে থাকে। ফোনের স্কিন অফ করে  কিংবা মিনিমাইজ করে আমরা এটি উপভোগ করতে পারিনা।   আবার  এই মিউজিক ডাউনলোড এরি জন্য লিংক সরাসরি  অন্য অ্যাপে পাঠাতে হয়।

কিন্তু  মজার ব্যাপার হলো  এখন   আপনি যেভাবে চান সেভাবেই এই ইউটিউব উপভোগ করতে পারবেন।  এবং  ডাউনলোড করতে পারবেন সরাসরি  ইউটিউব থেকে। আপনি চাইলেই  আপনার ডিভাইসের স্কিন অফ রেখে ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক উপভোগ করতে পারবেন।  তার জন্য আপনাকে ফলো করতে হবে কিছু  টিপস এন্ড ট্রিকস।

প্রায়  অধিকাংশ অ্যান্ড্রয়েডে ক্রোম ব্রাউজার এবং আইফোনে ডলফিন ব্রাউজার রয়েছে । আর যদি এই ক্রোম ব্রাউজার হয় আপনার ডেক্সটপে তাহলে আরো সহজেই  আপনি এই কাজটি করতে পারবেন। ।ব্রাউজার টিতে ইন করে  ইউটিউব  ওপেন করে আপনার পছন্দানুযায়ী  ভিডিও স্ট্রার্ট করে মিনিমাইজ করে নোটিফিকেশন শেডে রাখতে পারেন। এবং কাজের সাথে সাথে  অডিও মিউজিক উপভোগ করতে পারেন।

সব অ্যান্ড্রয়েডেও ফোনেও আপনি একই ভাবে   ইউটিউব উপভোগ করতে পারেন।  কিন্তু আমাদের একটা বিষয় জানা উচিৎ যেকোনো অ্যন্ড্রয়েড কিংবা আইফোন  বা ডেস্কটপে ব্যাকগ্রাউন্ড ইউটিউব প্লে সাপোর্ট করেনা।

অ্যন্ড্রয়েড  এর মধ্যে  স্যামসাং এর গ্যালাক্সি নোট ৮ এবং এলজি-র V30-এর মতো কিছু ফোন স্প্লিট-স্ক্রীন মাল্টিটাস্কিং  আছে যা আপনাকে  অন্যান্য একটিভির পাশাপাশি একটি  ইউটিউভ  উইন্ডো প্রদান করে থাকে। কিন্তু এটি শুধু এই স্কিনে কাজ করবে।

এবং ইউটিউব থেকে যেকোনো কিছু উপভোগ করার  পাশাপাশি অন্যান্য কাজে সহায়তা করে। বর্তমানে এটি খুব ই পরিচিত হয়ে উঠেছে এই ফোনের অধিকাংশ  ইউজারদের কাছে।  আর অধিকাংশ অ্যান্ড্রয়েডে ক্রোম ব্রাউজার টি আছে।

ফোনে ব্যাকগ্রাউন্ড  ইউটিউব উপভোগের জন্য আপনাকে আর সামান্য কিছু স্টেপ মানতেই হয়। আপনার ফোনের ক্রোম ব্রাউজারে  ওপেন করে www.youtube.com  সার্চ করে   ওপেন করুন। তারপর ডান দিকের   ডট মেনুতে ক্লিক করে রিকুয়েস্ট ডেস্কটপ টি চেক করুন।  আপনি যে ভিডিও টি শুনতে চান তা প্রেস করুন নেভিগেট করে। যদি আপনি একটি ওর্য়ানিং মেসেজ পেয়ে থাকেন তাহলে  ইয়েস বাটনে ক্লিক করুন।

তারপর আপনি ক্রোম অ্যাপ ইক্সিট করে নোটিফিকেশ মেনু থেকে প্লেব্যাক পুনরায় চালু করতে পারবেন। এবং ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক এর সাথে সাথে আপনি অন্যান্য কাজ করতে পারবেন। এবং   আইওএস বা আইফোনে , যদি ডলফিন ব্রাউজার না থাকে তাহলে সর্বপ্রথম এটি ডাউনলোড করতে হবে।

তারপর www.youtube.com  ওপেন করে  আপনি যে গানটি শুনতে চান সেটি প্রেস করুন নেভিগেট করে।ডলফিন অ্যাপ থেকে  ইক্সিট করে  আপনি আইওএস কন্ট্রোল সেন্টার থেকে প্লেব্যাক পুনরায় চালু করতে পারবেন। এবং ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক এর সাথে সাথে আপনি অন্যান্য কাজ করতে পারবেন।

এর  আরো কয়েকটি পদ্ধতি পাওয়ার জন্য অনলাইনের মাধ্যমে ব্রাউজ করুন। ব্যাকগ্রাউন্ড প্লে একটিভির জন্য  যা গুগলেও সাপোর্ট করে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *